ফুলগাজী প্রতিনিধি->>

ফুলগাজী উপজেলার দরবারপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) একজন সদস্যর বিরুদ্ধে এক যুবককে বিদ্যুতের খুঁটির সাথে বেধে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগে ইউপি সদস্য ছলিম উদ্দিন (৫৫) ও তাঁর সহযোগী মো. বাবুকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার বিকেলে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে সকালে দরবারপুর ইউনিয়ন পরিষদের পাশে রাহিফুল রাহান (২১) নামে এক যুবককে নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছিলো। আহত রাহিফুল পরশুরাম উপজেলার রাজশপুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে। তবে মুন্সিরহাট এলাকার উত্তর শ্রীপুর গ্রামে নানার বাড়ীতেই বসবাস করেন। এ ঘটনায় ইউপি সদস্য ছলিম উদ্দিনসহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে ফুলগাজী থানায় একটি মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও নির্যাতনের শিকার ওই যুবক রাহিফুল রাহান জানান, একটি কাল্পনিক অপহণের অভিযোগে ইউপি সদস্য ছলিম উদ্দিন ও তাঁর সহযোগীরা বুধবার সকালে রাহিফুল রাহানকে মুন্সিরহাট বাজারে একা পেয়ে জোর করে ধরে স্থানীয় দরবার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ভবনের পাশে নিয়ে যায়। সেখানে ইউপি সদস্য ছলিমসহ তাঁর সহযোগীরা রাহিফুলকে একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেধে এলোপাথাড়ী পিটিয়ে আহত করে। পরে স্থানীয় কিছু লোক এগিয়ে এসে ওই যুবকের বাঁধন খুলে দেয়। ছাড়া পেয়ে ওই যুবক ফুলগাজী থানায় গিয়ে ইউপি সদস্য ছলিম উদ্দিনসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ফুলগাজী থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো.আশ্রাফুল আলম জানান, পুর্ব শত্রুতার জের ধরে বুধবার সকালে ইউপি সদস্য ছলিম উদ্দিন ও তাঁর সহযোগীরা দরবারপুর ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই একটি বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে হাত বেধে ওই যুবককে এলোপাথাড়ী পিটিয়ে আহত করার সত্যতা পাওয়া গেছে।
ফুলগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কুতুব উদ্দীন বলেন, যুবককে নির্যাতনের অপরাধে ইউপি সদস্যসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হবে।

Sharing is caring!