image
সৌরভ পাটোয়ারী ফেনী ,১৩ জানুয়ারী->>
সিমান্ত হাট দু-দেশের অর্থনীতিসহ মানুষের হৃদয়ের সম্পর্ক আরো উন্নত হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহম্মদ। তিনি আরো বলেন, এর মাধ্যমে নতুন করে ভারত-বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক সমস্যা সমাধানের সুযোগ সৃষ্টি হলো। এবাজার হবে মাদক ও নেশা মুক্ত । এ নতুন বাজারের নতুন পথে দুদেশের উৎপাদিত পন্য ক্রয়-বিক্রির মাধ্যমে ব্যবসা-বানিজ্য আরো বেশি দুরে এগিয়ে নিয়ে যাবে।
আজ মঙ্গলবার বেলা আড়াইটায় টায় ফেনী ছাগনাইয়ার সিমান্ত হাট উদ্বোধন তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
ভারতের শিল্প ও বাণিজ্য সচিব লোক রঞ্জের সভাপতিত্বে সিমান্ত হাট উদ্ধোধন কালে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, ত্রিপুরা রাজ্যের মূখ্য মন্ত্রি মানিক সরকার, বক্তব্য রাখেন, ভারতের শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রি নির্মলা সীতা রমন, ত্রিপুরা এমপি দ্রুত জিতেন্দ্র চন্দ্র চট্রোপধ্যায়( পূর্ব ত্রিপুরা), ফেনী -১ আসনের এমপি শিরিন আক্তার,
এসময় উপস্থিত ছিলেন, ফেনী ২ সাংসদ নিজাম উদ্দি হাজারী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি জানারা বেগম সুরমা, বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক, শিল্পমন্ত্রী, মুখ্য সচিব , ফেনীর পুলিশ সুপার রেজাইল হক পিপিএম, বাসু দেব মজুমদার, ফজলে কাদের, ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফয়েজ আহাম্মদ বি.এ, সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মেজবাউল হায়দার চৌধুরী সোহেল ও ভারতের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

এখন থেকে সপ্তাহের প্রতি মঙ্গলবার দুপুর ১টা থেকে ৫টা পর্যন্ত ৪ ঘন্টা সীমান্ত হাট বসবে। এবং সীমান্ত হাটের ৫ কিলোমিটারের মধ্যে বসবাসকারী লোকজন এই হাটে কেনাকাটা করবেন। প্রত্যেক ক্রেতা সর্বোচ্চ ১০০ডলারের সমপরিমান মূল্যের মালামাল ক্রয় করতে পারবেন বলে জানা গেছে।আর এ জন্য ক্রেতা-বিক্রেতাকে ছবিযুক্ত পরিচয়পত্র দেয়া হয়।

Sharing is caring!