নিজস্ব প্রতিবেদক->>
সোনাগাজী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. হিটলারুজ্জামানের দুর্র্নীতি ও অনিয়ম তদন্তে এবার ফেনীতে এলেন অধিদপ্তরের তদন্ত কমিটি। গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ে বসে সোনাগাজীর বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষকরা কমিটির কাছে তাঁর বিরুদ্ধে লিখিত বয়ান দিয়েছেন।

জেলা ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ের সূত্র জানায়, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর, মিরপুরের সহকারী পরিচালক কামরুল ইসলাম – পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) সমন্বয়ে গঠিত এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ফেনী সদরের পুরাতন জেল রোডের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ে বসে সোনাগাজীর বিভিন্ন স্কুলের ৩০ জন শিক্ষকের লিখিত বয়ান সংগ্রহ করেন। এসময় শিক্ষকরা হিটলারের ঘুষ বাণিজ্য ও নানা ছুঁতোয় চাঁদাবাজি, হঠাৎ করে বিনা ছুটিতে অনুপস্থিত থাকাসহ নানা তথ্য তদন্ত কমিটির কাছে তুলে ধরেন। এর আগে গত মে মাসে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে করা অপর একটি তদন্ত কমিটিও তাঁর বিষয়ে তদন্ত করেন এবং নানা অভিযোগের সত্যতা পান।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষন করলে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম অধিদপ্তর থেকে এ ব্যাপারে তদন্ত কমিটির আগমন ও শিক্ষকদের বয়ান সংগ্রহের সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে পরে জানানো হবে।

এ ব্যাপারে হিটলারুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এসব অভিযোগের ভিত্তি নেই বলে জানান।
প্রসঙ্গত, সম্প্রতি সোনাগাজী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা হিটলারুজ্জামানের দূর্ণীতি নিয়ে একাধিক জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

Sharing is caring!