সদর প্রতিনিধি->>

ফেনী সদর উপজেলার শর্শদী ইউনিয়নের গজারিয়াকান্দি গ্রামে নিখোঁজের ৮ দিন পর মঙ্গলবার রাতে মোশারফ হোসেন সজিব (১৫) নামের এক স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। নিহত সজিব ওই এলাকার কাতার প্রবাসী দেলোয়ার হোসেনের ছেলে ও ফেনী শহরের হলি ক্রিসেন্ট ইনস্টিটিউটের ৮ম শ্রেণির ছাত্র। এ ঘটনায় স্থানীয় পোল্ট্রি ফার্মের মালিক মানিককে আটক করা হয়।
নিহতের পরিবার জানায়, ঈদের দিন রাত ৮ টার দিকে সহপাঠি বন্ধু সজিবের সাথে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় মোশারফ হোসেন সজিব। আত্মীয়-স্বজন সহ সম্ভাব্য স্থানে খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান না পেয়ে ফেনী মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করে। পরে জিডির কপিসহ স্বজনরা পিবিআই ও র‌্যাবের দারস্থ হয়।
একপর্যায়ে পিবিআই ঘটনার অনুসন্ধানে নেমে নিখোঁজ সজিবের সহপাঠি সজিবকে আটক করে কার্যালয়ে নিয়ে আসে।

জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, তারা দু’জনই ঈদের দিন রাতে মুরগি আনতে ঘাগড়া গ্রামের একটি মুরগীর খামারে যায়। সেখানে খামার মালিক টের পেয়ে এগিয়ে এলে সে পালিয়ে যায়। এরপর সজিবের কী হয়েছে সে জানেনা। তার দেয়া তথ্যমতে, পিবিআই খামার মালিককে আটক করে নিয়ে আসে।
জিজ্ঞাসাবাদে খামার মালিক জানিয়েছে, পালাতে গিয়ে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটে সজিব মারা যায়। মামলার ভয়ে তাকে খামারের ভিতর পুকুর পাড়ে মাটি চাপা দিয়ে রাখে।
মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পিবিআই সদস্যরা মাটির নিচ থেকে সজিবের লাশ উদ্ধার করে।
ফেনী পিবিআইয়ের পরিদর্শক মো. শাহ আলম জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেনারেল হাসপতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Sharing is caring!