আহত-৫, আটক-৭
image

শহর প্রতিনিধি, ৫ জানুয়ারি->>

ফেনীতে ২০ দলের মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছে। এসময় পুলিশের লাঠিচার্জে ৫ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। সোমবার দিনভর ছাত্রদল শহরের বিভিন্ন স্থানে ঝটিকা মিছিল করে ককটেল বিস্ফোরণ করে। এসময় তার যাত্রীবাহি বাসসহ অন্তত ১০টি গাড়ি ভাংচুর করেছে। পুলিশ বিভিন্ন স্থান থেকে ছাত্রদল নেতাসহ অন্তত ৭ জনকে আটক করেছে। এদিকে আওয়ামী লীগের ‘গণতন্ত্র রক্ষা দিবস’ উপলক্ষে শহরের শহীদ মিনারে জনসভা করলে তার পাশবর্তী ট্রাংক রোডে ককটেল বিস্ফোরণে অনিক ও হৃদয় নামে দুই স্কুল শিক্ষার্থী গুরুত্বর আহত হয়েছে। এসময় বিক্ষুব্ধ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা জেলা পরিষদ প্রশাসকের গাড়ি ভাংচুর করেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলে শহরের ট্রাংক রোডের খাজুর চত্বরে দূর্বৃত্তরা ককটেল বিস্ফোরণ করলে মিনহাজুল ইসলাম অনিক (১৬) ও শাহরিয়ার হৃদয় (১৫) নামে দুই শিক্ষার্থী গুরুত্বর আহত হয়েছে। আহতরা ফেনী পাইলট হাই স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্র। আহতদের ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে অনিক’র অবস্থা আশংকা জনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।
এর আগে শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়কের জহিরিয়া মসজিদের সামনে থেকে ২০ দলের গুটিকতেক নেতাকর্মী কালো পতাকা মিছিল বের করলে পুলিশ লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এদিকে একই সড়কের পাঠানবাড়ি মোড় থেকে ছাত্রদলের একাংশ কালো পতাকা মিছিল বের করলে পুলিশ ধাওয়া করে ছাত্রদলের একাংশের প্রচার সম্পাদক ফরহাদ উদ্দিন চৌধুরী মিল্লাত ও ইকবাল হোসেন নামে দুই ছাত্রদল নেতাকে আটক করেছে।
অপরদিকে একই সড়কের ইসলাম পুর মোড় ও ওয়াপদা মোড়ে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ঝটিকা মিছিল করে বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ করে। এসময় তার যাত্রীবাহি বাসসহ ৮/১০ গাড়ি ভাংচুর করে। এছাড়া শহরের সেন্ট্রাল হাই স্কুল মোড় এলাকায় ছাত্রদল ঝটিকা মিছিল করে ককটেল বিস্ফোরণ করে গাড়ি ভাংচুর করেছে।
এদিকে আওয়ামী লীগের ‘গণতন্ত্র রক্ষা দিবস’ উপলক্ষে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনাররে জনসভা করে। জনসভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রহমান বিকমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন হাজারী, সংরক্ষিত মহিলা সাংসদ জাহান আরা বেগম সুরমা প্রমুখ। জনসভা চলাকালে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মুখোশধারী ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতারা অস্ত্র ও লাঠি হাতে স্বশস্ত্র মহড়া দিয়েছে। জনসবা চলাকলে একপর্যায়ে বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ কর্মীরা জেলা পরিষদের প্রশাসক ও ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আজিজ আহম্মদ চৌধুরীর গাড়ি ভাঙচুর করে।
ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. সাইফুল হক জানান, ছাত্রদলের মিছিলের থেকে নাষকতার কারনে ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পুলিশ র‌্যাবের পাশাপাশি দুই প্লাটুন বিজিবি টহল দিচ্ছে।

Sharing is caring!