শহর প্রতিনিধি->>

দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর দরজায় কড়া নাড়ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় এ উৎসব উপলক্ষ্যে জেলার সর্ববৃহৎ ঈদ জামাতের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ঐতিহাসিক মিজান ময়দান।

জেলার প্রধান ঈদ জামাত মিজান ময়দানে সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। এখানে নামাজের ইমামতি করবেন ফেনী আলিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হাসান।

ফাউন্ডেশন সূত্র জানায়, ফেনী কেন্দ্রীয় বড় জামে মসজিদে সকাল ৭টা ৪৫ মিনিটে, জহিরিয়া মসজিদ, পুরাতন রেজিষ্ট্রি অফিস জামে মসজিদ ও শান্তি কোম্পানী জামে মসজিদে ৮টা, ফেনী কোর্ট জামে মসজিদে ৭টা, পুলিশ লাইন মসজিদ, সার্কিট হাউজ জামে মসজিদ ও মহিপাল চৌধুরী বাড়ী জামে মসজিদ, ফেনী রেল স্টেশন জামে মসজিদে সাড়ে ৮টা, লমি হাজারী বাড়ি মসজিদে সাড়ে ৮টায়, জিএ একাডেমী হাই স্কুল মাঠে ৮টা ৪৫ মিনিটে, উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদে ৯টা ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। জেলা কারাগারে ৮টা ও বন্দীদের নিয়ে ঈদ জামাত সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন মসজিদ ও ঈদগাহ কমিটি তাদের সুবিধাজনক সময়ে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে।।

প্রধান জামাতকে কেন্দ্র করে ঐতিহাসিক মিজান ময়দানে চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। বাঁশ, কাঠ দিয়ে মাঠে প্রস্তুত হয়েছে প্যান্ডেল। চলছে ফ্যান টাঙানোর কাজ। কেউ কেউ আবার টুকিটাকি রঙের কাজে ব্যস্ত। কেউ গেট সাজাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

ফেনী পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী সার্বক্ষনিক তদারকী করছেন। রোববরা বিকেলে জেলা পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন সরেজিমনে মিজান ময়দান পরিদর্শন করেছেন।