নিজস্ব প্রতিনিধি->>

মেডিক্যাল কলেজে চান্স পাওয়া সুমির পাশে দাঁড়িয়েছেন এবার অধ্যাপক ডা. সাহেদুল ইসলাম কাওসার। রোববার দুপুরে ফেনী বিএমএ’র সভাপতি ডা. সাহেদুল ইসলাম কাওসারের সাথে সাক্ষাৎ করতে আসেন সুমিসহ তার বাবা-মা। এসময় ডা. কাওসার তার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ ২০ হাজার টাকা অনুদান দেন। এছাড়া মেডিক্যালে ভর্তি সহ সকল সহযোগিতার আশ্বাস দেন। যেকোন ভাবে পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

মেডিক্যাল কলেজে চান্স পেলেও পড়তে পারা নিয়ে রয়েছে শঙ্কায় রয়েছেন দরিদ্র পান বিক্রেতার মেয়ে সুমি রায়। তিনি ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার জায়লস্কর ইউনিয়নের পূর্ব হীরাপুর গ্রামের পরিমল রায় ও শিখা রানী রায়ের একমাত্র মেয়ে।

মেডিক্যাল কলেজের সদ্য প্রকাশিত ভর্তি পরীক্ষার ফলাফলে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েছেন তিনি। এ নিয়ে তার পরিবার ও এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দের বন্যা বইছে। ফল প্রকাশের পর থেকেই আশপাশের লোকজন সুমিকে দেখতে আসছেন, দোয়া- আশীর্বাদ করছেন। সুমির বাবা সিলোনীয়া বাজারে টুকরিতে পান বিক্রি করে সংসার চালান, মা গৃহিণী। পরিবারের পক্ষ থেকে পড়াশোনা চালানো সম্ভব নয় বলে সহযোগিতা চায় তার পরিবার।

এর আগে শনিবার সুমি রায়’র বাড়িতে গিয়ে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ফেনী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান শুসেন চন্দ্র শীল। এসময় তার পক্ষ থেকে ২০ হাজার টাকা অনুদান দেন। তিনি সব রকমের সহযোগিতার করবেন বলে জানান।