image
শহর প্রতিনিধি->>
ফেনীতে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী নাকের ডগায় ঘোরাফেরা করলে ও প্রভাবশালী হওয়ায় ধরছে না পুলিশ। উল্টো বাদীকে নানাভাবে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।
মামলার বাদী বিবি কুলছুম মুন্নী জানান, ২০০৮ সালের ২ জুলাই সদর উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের টঙ্গিপাড়ার মৃত কামাল উদ্দিনের ছেলে নাছির উদ্দিনের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে মুন্নীর পরিবারের কাছে ১ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে কামালের পরিবার। দাবীকৃত টাকা না দেওয়ায় তার উপর চলে অমানুষিক নির্যাতন । নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ১ লাখ টাকা এনে দিলে পুনরায় টাকা দাবী করে। একপর্যায়ে ২০১৩ সালের ১৮ অক্টোবর একমাত্র শিশু কন্যা সহ তাকে ঘর থেকে বের করে দিলে চট্টগ্রামের পিতার বাড়ীতে আশ্রয় নেয়। এ ঘটনায় মুন্নী চট্টগ্রাম নারী ও শিশু নির্যাতন দমন-১ এর আদালতে শাশুড়ী বিবি জোহরা দেবর গিয়াস উদ্দিন সোহেল সহ ৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করে। আদালত বিবি জোহরার বিরুদ্ধে চলতি বছরের ৩১ মার্চ গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। লেমুয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা কামরুজ্জামান তালুকদারের নিকটাত্মীয় হওয়ায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করছে না। এনিয়ে মুন্নী গত ১৮ডিসেম্বর ফেনী জেলা পুলিশ সুপার রেজাউল হক এর সাথে দেখা করলে তিনি ফেনী মডেল থানায় যোগাযোগ করতে বলেন। পরে তিনি থানা পুলিশে দ্বারস্থ হলে পুলিশ উল্টো তাকে নানা ভাবে হেনস্থা করে বলে তিনি জানান। এতে করে করছে। সে আসামীদের গ্রেফতারে আবারও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Sharing is caring!