image
নাজমুল হক শামীম,২৫ অক্টোবর–>>
ফেনীতে জেলা জাতীয় পার্টির নবনির্বাচিত কমিটির পরিচিতি সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও ফেনী-২ আসনের সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব ও ফেনী পৌরসভার মেয়র আলা উদ্দিন। শনিবার দুপুরে শহরের একটি গণমিলনায়তনে (কমিউনিটি সেন্টার) এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা জাতীয় পার্টির নবনির্বাচিত সভাপতি মোশারফ হোসেন ভূঞার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কেবিএম জাহাঙ্গির আলমের সঞ্চালনায় পরিচিতি সভা অনুষ্ঠানে ফেনী-২ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রধান অতিথি ছিলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল করিম, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক বাহার উদ্দিন বাহার, ফেনী পৌরসভার প্যানেল মেয়র বাহার উদ্দিন বাহার। বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব ও ফেনী পৌরসভার মেয়র আলা উদ্দিন। বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির নেতা তাজুল ইসলাম, ইসমাঈল হোসেন খোকন প্রমুখ।
বক্তরা তাদের বক্তব্যে বলেন, নিজাম উদ্দিন হাজারী না থাকলে ফেনীতে জাতিয় পার্টির অস্তিত্ব থাকতো না। নিজাম হাজারী জাতীয় পার্টির দিকপাল। পার্টির সদস্যরা নিজাম হাজারীর সামনে পরিচিত হবে পেরে তারা গর্বিত।
পরিচিতি সভার বিশেষ অতিথি জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ন মহাসচিব ও ফেনী পৌরসভার মেয়র আলা উদ্দিন বলেন, নিজাম হাজারীর হাতকে শক্তিশালি করতে জাতীয় পার্টির সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। এসয় তিনি জেলার সকল সদ্যসকে নিজাম হাজারীর নেতৃত্বে থাকতে আহবান জানান। তিনি আরে বলেন, ‘নিজাম হাজারী জাতায় পার্টির সকল সদস্যকে পর্যায়ক্রমে পৌরসভার কাজ দিতে তাকে নির্দেশ দিয়েছেন। আপনারা দীরে ধীরে সকলে কাজ পাবেন’।
প্রধাণ অতিথি নিজাম হাজারী তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমি জাতীয় পার্টি পরিবারের একজন সদস্য। পৌর মেয়র হাজী আলা উদ্দিন আমার ভাই। আমি জাতীয় পার্টির সকল সদস্যকে ঐক্যবদ্ধ থাকার অনুরোধ জানাচ্ছি।’
পরিচিত সভায় জাতীয় পার্টির সকল স্তরের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকলেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা বলেন, জাতীয় পার্টির পরিচিত সভায় আওয়ামী লীগ নেতার গুনকৃর্তন করলেও একবারের জন্যও কেউ পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদের নাম উচ্চারণ করেননি।
প্রসঙ্গত, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসাইন মোহাম্মদ এরশাদ গত ২৩ আগষ্ট পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে মোশারফ হোসেন ভূঞাকে সভাপতি ও কে বি এম জাহাঙ্গীর আলমকে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক করে নতুন কমিটি ঘোষনা করেন।

Sharing is caring!